দুইটা শখ এখনও বাকি আছে

0

ছোট্ট এই জীবনে বিদেশে ঘোরার কত বিচিত্রই না অভিজ্ঞতা! যেমন টাকার অভাবে হংকং এর পার্কের বেঞ্চে ঘুমিয়েছি, আবার এই যেমন কিছুদিন আগে আমেরিকা ছিলাম প্রতি রাতের ভাড়া ছিল US$ ১,২২০/রাত। আবার একবার তাইওয়ানে টাকার অভাবে সারাদিনে এক বেলা খেতাম, তেমনি আবার হংকং এর পেনিনসুলা’তে ডিনার করেছি। যেমন ৪৪ সে. ডিগিতে ছিলাম, আবার ২৫ সে. ডিগ্রিতেও অনেকটা দিন থাকার অভিজ্ঞতা আছে।

কিন্তু ২টা শখ এখনো বাকি আছে। আফ্রিকার জঙ্গলে সাফারি করা এবং এস্কিমোদের মত ইগলুতে থাকা। সেই ছোট বেলায় ভূগোল- এ পড়েছিলাম, উত্তর মেরু হলো বরফের রাজ্য, সেখানে বাস করে এক্সিমো। তারা সীল মাছের চামড়া দিয়ে পোশাক বানায়। তাদের মূল জীবিকা ও খাদ্য হল মাছ। তারা বরফ দিয়ে ঘর তৈরি করে, আর সেই ঘরের নাম ইগলু। সেই থেকে ইগলুতে থাকার খুব শখ।

জীবনের বিভিন্ন সময় কাজের ফাঁকে ফাঁকে খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করছি, ইগলুতে থাকা যায় কিনা? প্রায় ৪ বছর আগে খোঁজ পেয়েছি, তা ছিল ৭ দিনের প্যাকেজ। কিন্তু সময়ের অভাবে যেতে পারিনি, তাছাড়া ৭ দিন ইগলুতে থাকার সাহসও পাচ্ছিলাম না।

এবার সবকিছু ব্যাটে বলে মিলে গেল। একদিন এর জন্য যাচ্ছি, এই জানুয়ারিতেই। একটু টেনশন এ আছি, কারণ বেড রুমের তাপমাত্রা ২ সে. ডিগ্রি। মানে ডিপ ফ্রিজ। রাতে ঘুমাতে পারবো তো? মাথা ব্যাথা হয়ে যাবে না তো?

যা করে আল্লাহ, এবার এক দিনের জন্য যাবই।

লেখক : কর্ণধার, জাজ মাল্টিমিডিয়া (ফেসবুক থেকে সংগৃহীত)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here