বরিশালে সরকারি গ্রন্থাগারে কলেজ ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ

0

জাগো বাংলা ডেস্ক:
বরিশাল বিভাগীয় সরকারি গ্রন্থাগারে পড়তে গিয়ে ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করার অভিযোগ উঠেছে। গত ১২ ডিসেম্বর ওই গ্রন্থাগারে এই ঘটনা ঘটে।

ওই গ্রন্থাগারের পাঠকক্ষের সহকারী শহীদুল ইসলামের বিরুদ্ধে ১৯ ডিসেম্বর লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন ওই ছাত্রী।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গ্রন্থাগারের তৃতীয় তলায় বিএম কলেজের ওই ছাত্রী পড়তে যান। তিনি দুপুরের দিকে দ্বিতীয় তলায় বাথরুমের উদ্দেশে বের হন। সিঁড়ি থেকে নামার সময় পেছন থেকে শহীদুল ইসলাম ওই ছাত্রীর শ্লীলতাহানির চেষ্টা করেন। এরপর কোনো ভাবে দৌড়ে গিয়ে নিজেকে রক্ষা করেন এবং গ্রন্থাগার থেকে বের হয়ে যান।

শহীদুল ইসলাম তাঁকে উদ্দেশ করে আগে থেকেই প্রায়ই অসৌজন্যমূলক কথা বলে আসছেন। এ নিয়ে গ্রন্থাগারে কর্মরত নুরুল ইসলামকে বিষয়টি জানানো হয়। এ ছাড়া অভিভাবকদের জানালে তাঁরা গ্রন্থাগারে যেতে নিষেধ করেন। কিছুদিন গ্রন্থাগারে যাওয়া বন্ধ রাখেন ওই ছাত্রী। শহীদুল ইসলামের বিরুদ্ধে এর আগেও অনেক মেয়ের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণের অভিযোগ রয়েছে।

এসব অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেছেন অভিযুক্ত পাঠকক্ষ সহকারী শহীদুল ইসলাম। তিনি বলেন, তাঁর বিরুদ্ধে কর্মস্থলের লোকজনই ষড়যন্ত্র করছেন।

বরিশাল বিভাগীয় সরকারি গ্রন্থাগারের উপপরিচালক মেজবাহ উদ্দিন জানান, প্রাথমিক ভাবে অভিযোগটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে। গ্রন্থাগারের ভেতরে পাঠকক্ষ সহকারীর বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ গুরুতর। আর চক্রান্তের সঙ্গে গ্রন্থাগারের এমএলএসএস শিশু-কিশোর শাখার মোস্তফার জড়িত থাকার বিষয়েও ইঙ্গিত দেন তিনি। অভিযোগটি পাওয়ার পর এ ঘটনায় এখনো কোনো তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়নি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here