মার্চ থেকে চালু হবে হ্যালো সিএনজি অ্যাপ

0

উবার, পাঠাওয়ের মতো এবার অ্যাপস ভিত্তিক পরিবহন সেবার আওতায় আসছে সিএনজি অটোরিক্সা। এবার নতুন করে যোগ হতে যাচ্ছে হ্যালো রাইড শেয়ারিং অ্যাপ। প্রাইভেটকার ও মোটর বাইকের পর এবারে সিএনজি অটোরিকশাকে যুক্ত করা হচ্ছে অ্যাপ ভিত্তিক সার্ভিসে। পহেলা মার্চ থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হবে এই সেবা। এতে ভাড়া নির্ধারণসহ নানা সমস্যা দূর হওয়ায় সিএনজি চালকদের পাশাপাশি স্বস্তি প্রকাশ করছেন যাত্রীরা।

২০১৫ সালের জুলাইয়ে ‘টপ আই আই’ নামে একটি প্রতিষ্ঠান অ্যাপ নির্ভর পরিবহন সার্ভিস “হ্যালো রাইড শেয়ারিং অ্যাপের পরিকল্পনা শুরু করে। তবে, সরকারি কোন নীতিমালা না থাকায় আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরু করা যায়নি। অবশেষে সোমবার মন্ত্রীসভায় অ্যাপ ভিত্তিক এসব রাইড শেয়ারিং সার্ভিস নীতিমালার খসড়ার অনুমোদন দেয়ার পর দিন মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলেনের মাধ্যমে যাত্রা শুরু করলো অ্যাপ ভিত্তিক এই নতুন সার্ভিসটি।
আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পরিক্ষামূলক ভাবে চলবে হ্যালো অ্যাপ সার্ভিস। পরে, পহেলা মার্চ থেকে ঢাকার রাস্তায় শুরু হবে এর আনুষ্ঠানিক যাত্রা। যেসব সিএনজি চালক স্মার্টফোন সম্পর্কে অজ্ঞ তাদের কথা বিবেচনা করে ইতোমধ্যে ৫ শতাধিক সিএনজি চালককে প্রশিক্ষণও দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

হ্যালো রাইড শেয়ারিং অ্যাপের মুখপাত্র রোকেয়া প্রাচী বলেন, ‘উদ্যোগ শুরু করি আমরা ২০১৫ সালে। কিন্তু আমরা অপেক্ষা করছিলাম যাতে সরকারের কাছ থেকে নীতিমালাও অনুমতি আমরা যাতে পাই। এটি সম্পূর্ণবাবে বাংলাদেশে নির্মীত এবং চালক সমিতি ও মালিক সমিতির সঙ্গে এটি একটি মিলিত প্রয়াস।’

হ্যালো অ্যাপের মাধ্যমে রাইড শেয়ারিং সার্ভিসে সিএনজি যুক্ত হলে চলাচলে সহজ হবে বলে মনে করেন সাধারণ যাত্রীরা।

স্মার্টফোন ব্যবহার করতে না জানলেও অ্যাপ ভিত্তিক সেবায় সিএনজি যুক্ত হচ্ছে জেনে খুশি অনেক সিএনজি চালক। এক্ষেত্রে যাত্রী পাওয়া ও ভাড়া নির্ধারনে সমস্যা কমবে বলে মনে করেন তারা।

টপ আই আই নামে একটি প্রতিষ্ঠান ও ঢাকা জেলা সিএনজি অটোরিক্সা ঐক্য পরিষদ যৌথভাবে চালু করতে যাচ্ছে হ্যালো রাইড শেয়ারিং নামে নতুন অ্যাপ ভিত্তিক সার্ভিসটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here