নারী-পুরুষকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

0

নারী-পুরুষের সমতাপূর্ণ সমাজ গঠনের লক্ষ্যে সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি আয়শা খানম।

তিনি বলেন, সমাজে আজ ঘটে চলছে নারীর প্রতি নানা ধরনের সহিংসতা আর এ সহিংসতা প্রতিরোধে সমাজে নারীর মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা করতে সকলে মিলে সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।

বুধবার বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সুফিয়া কামাল ভবন মিলনায়তনে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি কবি সুফিয়া কামালের ১০৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ।

আয়শা খানম বলেন, কবি সুফিয়া কামাল যিনি ছিলেন অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ, সমাজ এবং রাষ্ট্র গড়ার আন্দোলনের অগ্রদূত। যার মূল লক্ষ্য ছিল সমাজের সকল প্রকার বৈষম্য দূর করে সমতা প্রতিষ্ঠা করা। সকল আন্দোলনে তিনি নিজেকে ধারণ করেছেন, তিনি কোন রাজনৈতিক দলের সদস্য না হয়ে রাজনীতি সচেতন ছিলেন।

সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু বলেন, আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে প্রতি মুহূর্তে সুফিয়া কামালের দারস্থ হই। তিনি আমাদের অনুপ্রেরণর উৎস। আজকে যেভাবে সমাজে নারীর প্রতি সহিংসতা চলছে আমরা তা প্রতিরোধে করব। আর সুফিয়া কামালের সেসব ভূমিকাকে স্মরণ করে আগামীতে সামনের দিকে অগ্রসর হব এই প্রত্যাশা রাখেন তিনি।

আলোচনায় অংশ নিয়ে সাংবাদিক, কলামিস্ট লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ বলেন, নারীর মর্যাদা রক্ষার সামাজিক আন্দোলন হতে হবে সম্পূর্ণ দলীয় রাজনীতি নিরপেক্ষ। নষ্ট দলীয় রাজনীতি সমাজকে বিভক্ত করে ফেলেছে। নারী নির্যাতন নির্মূলের পথে তা একটি বড় বাধা।

মাদকের সঙ্গে নারী নির্যাতনের সম্পর্ক রয়েছে। পরিবারে মাদকাসক্তদের দ্বারা নারী নির্যাতিত হচ্ছে। সুতরাং নারীর নিরাপত্তার জন্য মাদকমুক্ত সমাজ চাই। তাই নাগরিক সমাজকে মাদকের বিরুদ্ধেও দাঁড়াতে হবে।

অনুষ্ঠানে সংগঠনের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক উম্মে সালমা বেগম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সীমা মোসলেমসহ মহিলা পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা উপস্থিতি ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here