নিজেই তৈরি করুন শ্যাম্পু

0

চুল পরিষ্কার রাখার জন্য শ্যাম্পুর বিকল্প নেই। কিন্তু নিয়মিত শ্যাম্পু ব্যবহারে একটা সময় চুল নিষ্প্রাণ হয়ে যেতে পারে। আবার ভেজালমিশ্রিত শ্যাম্পু কিনে ঠকে যাওয়ার ভয় তো আছেই। তাই চুল ভালো রাখতে চাইলে নিজেই বানিয়ে নিতে পারেন শ্যাম্পু।
সপ্তাহে অন্তত দুই দিন ঘরোয়া শ্যাম্পু ব্যবহার করলে চুল থাকবে ঝলমলে ও প্রাণবন্ত।

তিনটি ডিমের কুসুমের সাথে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। ভেজা চুলে এই মিশ্রণ লাগিয়ে নিন। ভালো করে চুলে এই মিশ্রণ ঘষে নিন। এবার চুল ধুয়ে ফেলুন। ডিমের গন্ধ থেকে মুক্তি পেতে শ্যাম্পু করার পর চুলে কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। অথবা ঠান্ডা পানিতে তিন টেবিল চামচ ভিনেগার মিশিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন চুলে আর গন্ধ থাকবে না।

চাইলে শুধু মাত্র ডিম দিয়ে ও চুল ধুতে পারেন। ডিম আপনার চুলকে কোমল রাখবে। তৈলাক্ত চুলে মধুর পরিবর্তে লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন। এবং যারা শুষ্ক চুলের অধিকারী তারা ডিমের কুসুমের সাথে সামান্য কুসুম গরম পানি মিশিয়ে ব্যবহার করতে পারেন।

তিনটি ডিমের কুসুমের সাথে আধা কাপ বেকিং সোডা মিশিয়ে শ্যাম্পু করে নিন। বেকিং সোডায় প্রচুর ক্ষার আছে তাই, এটি ব্যবহারের পর শ্যাম্পু করতে ভুলবেন না। বেকিং সোডা মাসে দুই তিনবারের বেশি ব্যবহার করবেন না। প্রতি মাসে তিনবার ব্যবহার করলে চুল ভেতর থেকে পরিষ্কার হবে। কিন্তু , অতিরিক্ত ব্যবহারের ফলে চুল পড়া শুরু হতে পারে।

প্রাকৃতিক শ্যাম্পু তৈরির উপাদানগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো জেলোটিন। এক টেবিল চামচ জেলোটিন পাউডার ঠান্ডা পানিতে মিশিয়ে ফ্রিজে রেখে দিন। জেলোটিন জমে গেলে হাত দিয়ে তা সামান্য ভেঙ্গে নিন। এরপর এর সাথে ডিমের কুসুম মিশিয়ে চুলে ভালো করে লাগিয়ে নিন। ব্যস, এবার শ্যাম্পু করে চুল কন্ডিশনিং করে নিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here